‘কানাডার কাছে বাংলাদেশ খুবই গুরুত্বপূর্ণ’

কানাডা,বর্তমানকণ্ঠ ডটকম: কানাডার কাছে বাংলাদেশ খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি দেশ বলে মন্তব্য করেছেন কানাডার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত পার্লামেন্টারি সেক্রেটারি এন্ড্রু লেসলি এমপি। তিনি অটোয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন মহান স্বাধীনতার ৪৬তম বার্ষিকী ও জাতীয় দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, তাঁর কাছে বাংলাদেশের একটি বিশেষ আবেদন রয়েছে, এ জন্যই যে তাঁর নির্বাচনী এলাকা অরলিন্সের বিপুল সংখ্যক ভোটার হচ্ছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কানাডিয়ান, যারা সাফল্যের সাথে কানাডার উন্নয়নে অবদান রাখছেন।

কানাডা-বাংলাদেশের দ্বিপাক্ষিক কূটনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক ক্রমবর্ধিঞ্চু। এই দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক যাতে আরও জোরদার হয় এবং উভয় দেশের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা যাতে আরও বাড়ে সে লক্ষ্যে তাঁর পক্ষ থেকে সব রকম সহযোগিতা থাকবে বলে তিনি জানান। কানাডা-বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক কূটনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক অত্যন্ত চমৎকার উল্লেখ করে এন্ড্রু লেসলি বলেন, আগামী দিনগুলোতে এ সম্পর্ক আরো জোরদার হবে বলে তিনি দৃঢ়ভাবে আশাবাদী।

গত ২৮শে মার্চ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নগরীর ঐতিহ্যবাহী ফেয়ারমন্ট শ্যাতো লরিয়ার হোটেলের এডাম হলে অটোয়াস্থ বাংলাদেশ হাই কমিশন এক আনুষ্ঠানিক সম্বর্ধনার আয়োজন করে। সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানে কানাডার সংসদ সদস্য ও সিনেটরগণ, গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স ডিপার্টমেন্ট (পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়)সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ, অটোয়ায় অবস্থানরত বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও হাইকমিশনারগণ, আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ, মুক্তিযোদ্ধাগণ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ, ব্যবসায়ী, সাংবাদিক, উন্নয়ন সংস্থার প্রতিনিধিবৃন্দ, নেতৃস্থানীয় কানাডীয় সমাজকর্মীবৃন্দ, শিল্পী-সাহিত্যিকগণ, বাংলাদেশি ছাত্র-ছাত্রী গবেষক এবং চিকিৎসক, প্রকৌশলী, সরকারী চাকুরীজীবী ও উদ্যোক্তাসহ বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত বিশিষ্ট কানাডীয় নাগরিকগণ যোগদান করেন।

উভয় দেশের বন্ধুত্বের প্রতীক অঙ্কিত কেক কেটে বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন করা হয়।

bangla

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *