কানাডার মূলধারার রাজনীতিক ফেরদৌস বারী জন-এর নেতৃত্বে কানাডিয়ান-বাংলাদেশী পাবলিক অ্যাফেয়ার্স কমিটির যাত্রা শুরু

বিশেষ সংবাদদাতা, বর্তমানকন্ঠ ডটকম, বোস্টন, যুক্তরাষ্ট্র : যাত্রা শুরু করলো “কানাডিয়ান-বাংলাদেশী পাবলিক অ্যাফেয়ার্স কমিটি”। ২০১৬ সালে কানাডার টরন্টো সিটি কাউন্সিলে নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করে বিপুল জনপ্রিয়তা ও ভূয়সী প্রশংসা পেয়েছেন কানাডিয়ান মূলধারার রাজনীতিবিদ, এক্টিভিষ্ট, বিশিষ্ট ও সফল ব্যবসায়ী এবং বঙ্গবন্ধু প্রচার কেন্দ্র সমাজকল্যান পরিষদ উত্তর আমেরিকার সিনিয়র সহ-সভাপতি ফেরদৌস বারী জন-এর নেতৃত্বে যাত্রা শুরু করেছে “কানাডিয়ান-বাংলাদেশা পাবলিক অ্যাফেয়ার্স কমিটি”। খবর বাপসনিউজ।

“কানাডিয়ান-বাংলাদেশী পাবলিক অ্যাফেয়ার্স কমিটি” ( CBPAC ) ইতি মধ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মস্বীকৃত খুনি নূর চৌধুরীকে দেশে ফেরত পাঠানোর দাবীতে “মুভমেন্ট ফর ডিপোটেশন অব নূর চৌধুরী” টরোন্টোর ড্যানফরথে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করেন। এই কমিটি ( CBPAC ) কানাডার ৬জন ( আইন প্রণেতা ) সংসদ সদস্যদের সাথে আনুষ্ঠানিক বৈঠক করার আমন্ত্রণ পেয়েছেন। প্রাথমিকভাবে ১০১ সদস্যের পরিচালনা পর্সদ নিয়ে যাত্রা শুরু করা এই সংগঠনটি বাংলাদেশে সরকারের রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক স্বার্থ এবং বাংলাদেশের গণমানুষের সার্বিক কল্যাণে কাজ করবে বলে এর প্রেসিডেন্ট, সিইও ও প্রতিষ্ঠাতা ফেরদৌস বারী জন বাপসনিউজকে জানান।

কমিটির অন্যতম শীর্ষ পরিচালক ও উপদেষ্ঠা নির্বাচিত করা হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের মূলধারার রাজনীতিক, মানবাধিকার কমি.এক্টিভিষ্ট, আমেরিকান প্রেসক্লাব অব বাংলাদেশ অরিজিন সভাপতি, যুক্তরাষ্ট্রের মূলধারার হু হজ হো, নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিল, ফোবানাসহ অসংখ্য পরুষ্কার বিজয়ী সিনিয়র সাংবাদিক হাকিকুল ইসলাম খোকনকে।

উল্লেখ্য আমেরিকান ইসরাইল পাবলিক অ্যাফেয়ার্স কমিটি ( AIPAC ) বিশ্বব্যাপি সবচেয়ে শক্তিশালী জুইসদের লবিং অর্গানাইজেশন হিসেবে পরিচিত। এরই আদলে “কানাডিয়ান-বাংলাদেশী পাবলিক অ্যাফেয়ার্স কমিটি (CBPAC) বিশ্বব্যাপি বাঙ্গালীদের শক্তিশালী লবিং অর্গানাইজেশন হিসেবে কাজ করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *