বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বসবাসরত ২ শত ৯৯ জন ছাত্র ছাত্রী এইচএসসি পরিক্ষায় অংশ গ্রহন করছেন

নিজস্ব প্রতিনিধি, বর্তমানকন্ঠ ডটকম: এবারের এইচএসসি পরিক্ষায় প্রশ্নফাঁস ঠেকাতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এসব পদক্ষেপের ফলে প্রশ্ন ফাঁস ঠেকানো যাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আমরা আগের চেয়ে আরও কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছি। অনেক বেশী পদ্ধতি গ্রহণ করছি, অনেক কৌশল নিয়েছি। এজন্য প্রশ্নপত্র ফাঁস হবে না বলে আশা করতে পারি।
আজ সোমবার (২ এপ্রিল) থেকে সারাদেশে একযোগে এইচএসসি ও আলিম পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। পরীক্ষায় মোট ১৩ লক্ষ ১১ হাজার ৪৫৭ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করছে। এরমধ্যে ২ শত ৯৯ জন প্রবাস থেকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছেন।
সৌদি আরবের রিয়াদের বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে ৮৭, জেদ্দায় অবস্থিত বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে ৭৮ জন, কাতারের দোহায় অবস্থিত বাংলাদেশ মাশহুরুল হক মেমোরিয়াল স্কুলে ৫৯, আবুধাবির শেখ খলিফা বিন যায়েদ বাংলাদেশ ইসলামিয়া স্কুলে ২৩, লিবিয়ার ত্রিপলিতে অবস্থিত বাংলাদেশ কমিনিউটি স্কুলে ১২, দুবাইয়ের বাংলাদেশ ইসলামিয়া স্কুলে ১৯ এবং বাহরাইনের বাংলাদেশ স্কুল কেন্দ্রে ২১ জন পরীক্ষার্থী।
২৯৯ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১৫৯ জন ছাত্র এবং ১৪০ জন ছাত্রী রয়েছে। এরমধ্যে সৌদি আরবের রিয়াদে বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে ৪৫ জন ছাত্র, ৪২ জন ছাত্রী, জেদ্দায় অবস্থিত বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে ৪২ জন ছাত্র, ৩৬ জন ছাত্রী । কাতারের দোহায় অবস্থিত বাংলাদেশ মাশহুরুল হক মেমোরিয়াল স্কুলে ৩১ জন ছাত্র, ২৮ জন ছাত্রী, আবুধাবির শেখ খলিফা বিন যায়েদ বাংলাদেশ ইসলামিয়া স্কুলে ১৪ জন ছাত্র, ৯ জন ছাত্রী জন ছাত্রী রয়েছে।
এছাড়া লিবিয়ার ত্রিপলিতে অবস্থিত বাংলাদেশ কমিনিউটি স্কুলে ৭ জন ছাত্র, ৫ জন ছাত্রী, দুবাইয়ের বাংলাদেশ ইসলামিয়া স্কুলে ৯ জন ছাত্র, ১০ জন ছাত্রী, বাহরাইনের বাংলাদেশ স্কুল কেন্দ্রে ১১ জন ছাত্র এবং ১০ জন ছাত্রী পরীক্ষায় অংশ নেবে।
এবারের পরীক্ষায় অনেক সেট প্রশ্নপত্র থাকবে। তবে ঠিক কত সেট প্রশ্নপত্র থাকবে না নির্দিষ্ট করে জানায়নি শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এই প্রশ্নপত্রগুলোর মধ্য থেকে কোন প্রশ্নপত্র দিয়ে পরীক্ষা নেয়া হবে তা জানানো হবে পরীক্ষার ২৫ মিনিট আগে। ২৫ মিনিট আগে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার মোবাইল নাম্বারে সেট কোড ব্যবহারের নির্দেশনার এসএমএস করে জানানো হবে। এর আগে প্রশ্নপত্রের প্যাকেট খোলা যাবে না।
এদিকে, বিভিন্ন সময় প্রশ্নপত্র কেন্দ্র থেকেই ফাঁস হয়ে আসছে বলে দাবি করে আসছেন শিক্ষামন্ত্রী। এজন্য কেন্দ্রে মোবাইল ফোন ব্যবহার নিয়েও বিধিনিষেধ আরোপ করেছে মন্ত্রণালয়। শুধুমাত্র কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কেন্দ্রে মোবাইল ব্যবহার করতে পারবেন। তবে ছবি তোলা যায়, এমন ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না।
এদিকে, অনলাইনে প্রশ্ন ফাঁস নিয়ে বিভিন্ন বিভ্রান্তি ছড়ায় বলে দাবি করেন মন্ত্রী। তার দাবি, অনলাইনে যে পোস্ট আগে দেয়া হয় সেটা আবার এডিট (সংশোধন) করা যায়। অনেকেই পোস্ট এডিট করে বলে প্রশ্ন ফাঁস হয়েছে। বিভ্রান্তি ছড়ায় বলে দাবি শিক্ষামন্ত্রীর। এসব বিষয়ে অভিবাবকসহ সবাইকে সতর্ক থাকার আহবান জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *