সৌদির রাজধানি রিয়াদ থেকে ১৪ শত কিলোমিটার দূরবর্তী এলাকায় দূতাবাসের কনস্যুলার সেবা

নিজস্ব প্রতিনিধি, বর্তমানকন্ঠ ডটকম, সৌদি আরব : সৌদি আরবের  উত্তরাঞ্চলীয় আল জউফ প্রদেশের গুরাইয়াত ও তাবারজল শহরে গত শুক্র ও শনিবার (৬-৭ এপ্রিল) বাংলাদেশ দূতাবাস অভিবাসী শ্রমিকদের বিভিন্ন প্রয়োজনীয় কনস্যুলার সেবা প্রদান করেছে । শহর দুটি রিয়াদের বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে প্রায় ১৪০০ কিলোমিটার দূরে জর্ডান সীমান্তবর্তী এলাকায় অবস্থিত।
এ সময় অভিবাসী শ্রমিকদের পাসপোর্ট নবায়ন, নতুন পাসপোর্ট তৈরি, সোনালী ব্যাংকে নতুন একাউন্ট খোলা, বৈধ পথে রেমিট্যান্স প্রেরণ ও প্রবাসী কল্যাণ কার্ড তৈরিসহ বিভিন্ন রকম সেবা প্রদান করা হয়। গুরাইয়াত ও তাবারজল শহরে প্রায় পাঁচশত অভিবাসী শ্রমিক কনস্যুলার সেবা গ্রহন করেন। প্রবাসী বাংলাদেশীগণ দূতাবাসের সেবা গ্রহনের জন্য খুব সকালে এসে অপেক্ষা করেন। সহজে ও দ্রুত সেবা  প্রাপ্তির কারনে তারা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে এ ধরনের সেবা অব্যাহত রাখার জোর দাবী জানান।
দূতাবাসের কার্যালয় প্রধান কাউন্সেলর ডক্টর ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, সোনালী ব্যাংক প্রতিনিধি আবদুল ওয়াহাব ও প্রেস উইং এর দ্বিতীয় সচিব মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম কনস্যুলার সেবা প্রদান করেন।
সৌদি আরবের সকল প্রান্তে অভিবাসী শ্রমিকদের কনস্যুলার সেবা প্রদান সম্পর্কে রাষ্ট্রদূত বলেন, সৌদি আরবে প্রায় ২২ লক্ষ প্রবাসী বাংলাদেশীকে সেবা প্রদানে দূতাবাস ও কনস্যুলেট বদ্ধপরিকর। অভিবাসী শ্রমিকগন যাতে সময়মত ও সহজে বিভিন্ন সেবা গ্রহন করতে পারে এজন্য দুতাবাসে সরাসরি সেবা প্রদানের পাশাপাশি দূরদূরান্তে অবস্থিত শহরে নিয়মিত কনস্যুলার সেবা প্রদান করা হচ্ছে। এতে সময়মত সেবা প্রাপ্তির সাথে সাথে তাদের সময় ও অর্থের সাশ্রয় হচ্ছে।
রাষ্ট্রদূত আরও বলেন, বর্তমানে অভিবাসী শ্রমিকদের বিভিন্ন সেবা সহজে প্রদানের লক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যলয়ের এ টু আই প্রকল্পের আওতায় বিভিন্ন শহরে ৬ টি প্রবাসী সেবা কেন্দ্র খোলা হয়েছে, যেখান থেকে সপ্তাহের যেকোনো দিন সেবা গ্রহন করা যায়। পর্যায়ক্রমে সৌদি আরবের সকল শহরে প্রবাসী সেবা কেন্দ্র খোলা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
কনস্যুলার সেবার পাশাপাশি অভিবাসী শ্রমিকদের বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড সম্পর্কে অবহিত করে বৈধ পথে দেশে রেমিট্যান্স প্রেরণের জন্য উদ্বুদ্ধ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *